শ তে শিক্ষা আর স তে সৃজনশীল

জাফর ইকবাল স্যারের একটা ব্লগ পড়তেসিলাম। যশোর শিক্ষা বোর্ডের উদ্যোগে তৈরী হয়েছে ‘সৃজনশীল প্রশ্ন ব্যাংক’। প্রশংসনীয় উদ্যোগ। কিন্তু শিক্ষা? আমি নিজে খুব নামকরা স্কুল আর কলেজ থেকে লেখাপড়া করেছি। আমরা এমন শিক্ষক চাইনি যাকে অঙ্ক খানিকটা মুখস্থ করে ক্লাস নিতে হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের কথা? সদ্য পাশ করা বড়ভাইদের দেখসি শিক্ষক হতে। অভিজ্ঞতার ঝুলিটা আমার মানিব্যাগের মতই ফাঁকা। প্রাথমিকের উন্নতি হইসে কিনা কে জানে… নাহলে বাচ্চাকাচ্চাগুলোর ভবিষ্যত গড়গড়িয়ে একটা স্কেটবোর্ডে চরে এবড়োথেবড়ো ডাউনফলে এগুবে, যুগে থেকে শতাব্দীতে। তিনি তার ব্লগে সঙ্গায়িত করেছেন ‘সৃজনশীল’ মানে ‘কাঠামোবদ্ধ’। অথচ আমি আসলেই জানতাম এটা হল একটা approach. পড়বে, শিখবে, কাজে লাগাবে। মাঝখানে যেটা না বলা থাকে সেটা হল ‘বোঝা’। বুঝে শিখবে কি? তিনিও কি আসলেই বুঝেছেন আমাদের কিসে ফোকাস করা জরুরী? থিওরীতো সবাই কপচাতে পারে। নির্জীব বইও। তাহলে?

সবাই প্রশ্ন করতে পারে। আমিও করলাম। সমাধান? জানিনা। সমাধান চাই। খাঁটি শিক্ষা নিয়ে বড় হওয়ার গ্যারান্টি চাই। যেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া ছেলেটা চাপাতি নিয়ে রাস্তায় নামবেনা। কোন অভিজিৎ রায় মারা যাবেনা। মন্ডপ ধ্বংস করে বাঙালিত্ব দেখাবেনা কোন বীরপুরুষ। এরাও নাকি এসএসসি পাশ। সবই কি এই ‘শিক্ষিত’দের দোষ? শিক্ষকদের কিছু নেই?

Advertisements